এখানে আপনার পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন দিন।

ঢাকা ২৩ জুন ২০২৪ রবিবার

ব্রেকিং

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি: বাংলাদেশর সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি, উপজেলা প্রতিনিধি, বিশেষ প্রতিনিধি ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি পদে জরুরী ভিত্তিতে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ নিউজ সাইটের যোগাযোগ অংশে প্রদত্ত ঠিকানায় (ফোন, ইমেইল) যোগাযোগ করুন।

মোঃ মাসুদ আলম স্টাফ রিপোর্টার:

প্রকাশিত: ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১৪:৫৫

আপডেট: ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১৪:৫৫

৮৮৫

শেয়ার:

বিজয় দশমীতে মণ্ডপ গুলোতে উপচে পড়া ভীড়

বুধবার ০৫ অক্টোবার সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা উৎসব। পাঁচ দিনব্যাপী শারদীয় উৎসবের শেষ দিন।

News

প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব। এ দিনেই দেবী মর্ত্য ছেড়ে ফিরে যাবেন স্বামীগৃহ কৈলাসে।

তাই মণ্ডপে মণ্ডপে আজ শুধুই বিষাদের ছায়া। উলুধ্বনি, শঙ্খ, ঘণ্টা আর ঢাকঢোলের বাজনায় থাকবে দেবী দুর্গার বিদায়ের সুর।

পুরাণ মতে, বিজয়া দশমীর অন্যতম আয়োজন ‘দেবীবরণ’। রীতি অনুযায়ী, সধবা নারীরা স্বামীর মঙ্গল কামনায় দশমীর দিন সিঁদুর, পান ও মিষ্টি নিয়ে দুর্গাকে সিঁদুর ছোঁয়ান। দেবীর পায়ে সিঁদুর ছোঁয়ানোর পর সেই সিঁদুর প্রথমে সিঁথিতে মাখান, পরে একে অন্যের সিঁথি ও মুখে মাখেন। মুখ রঙিন করে হাসিমুখে দেবীকে বিদায় জানান, যা সিঁদুর খেলা নামে পরিচিত।

গোদাগাড়ী ভগবন্তপুর সর্বজনীন দূর্গা মন্দিরে সকাল ৯টা ৫৭ মিনিটের মধ্যে দশমীর বিহিত পূজা এবং পূজা শেষে দর্পণ বিসর্জন। বিকাল ৪টায় রয়েছে বিজয়া শোভাযাত্রা। শারদীয় দুর্গাপূজার বিজয়া দশমী উপলক্ষ্যে আজ সরকারি ছুটির দিন।

বিজয়া দশমীতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মাঝে অন্যরকম আবেগ ও মন খারাপ করা এক অনুভূতির সৃষ্টি হয়। কারণ, দশমী মানেই দুর্গা মায়ের ফিরে যাওয়া। অপেক্ষায় থাকতে হবে আরও একটি বছর।সকাল থেকে মন্ডপে মণ্ডপে দেবীর বন্দনায় ভক্তকুলে ছিল ভিন্ন এক আবহ। ঢাকঢোল, কাঁসর-ঘণ্টাসহ বিভিন্ন বাদ্য, ধূপ আরতি ও দেবীর পূজা-অর্চনায় ছিল প্রাণখোলা উচ্ছ্বাস। সেই সঙ্গে ছিল এক মানবিক ও সুন্দর পৃথিবীর প্রার্থনা। মণ্ডপে মণ্ডপে ভক্তদের উপচে পড়া ভীড় বলে দেয় তারা যেন প্রাণের উৎসবে মেতে উঠেছে।বিজয় দশমীর দিনে দেবী দুর্গাকে প্রাণভরে দেখে নেওয়ার সময়। দুর্গাপূজার অন্তিম দিন এটি। এরপর আবার এক বছর অপেক্ষার পর্ব। মহাষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে গত শনিবার শুরু হয় পাঁচ দিনব্যাপী সার্বজনীন শারদীয় দুর্গোৎসব। সনাতনী শাস্ত্র অনুযায়ী, এবার দেবীদুর্গা জগতের মঙ্গল কামনায় গজে (হাতি) চড়ে মর্ত্যলোকে এসেছেন। এতে প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঝড়বৃষ্টি হবে এবং শস্য ও ফসল উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে। অন্যদিকে, স্বর্গে বিদায় নেবেন নৌকায় চড়ে। ফলে জগতের কল্যাণ সাধিত হবে। রাজশাহীতে অন্যান্যবারের চেয়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থা দ্বিগুণ করা হয়েছে। এতে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা খুশি। হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি তপন কুমার সেন জানান, রাজশাহীতে এ বছর ৪৫০টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা উদযাপন হচ্ছে। এরমধ্যে মহানগরীতে রয়েছে ৭৬টি মণ্ডপ ও ৯টি উপজেলায় ৩৭৪টি। এরমধ্যে রাজশাহীর পবা উপজেলায় মণ্ডপ রয়েছে ১৮টি, গোদাগাড়ী উপজেলায় ৩৯টি, তানোর উপজেলায় ৬০টি, মোহনপুর উপজেলায় ২২টি, বাগমারা উপজেলায় ৮০টি, দুর্গাপুর উপজেলায় ১৭টি, পুঠিয়া উপজেলায় ৫২টি, বাঘা উপজেলায় ৪৬টি, চারঘাট উপজেলায় ৪০টি। এখন পর্যন্ত রাজশাহীতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। সর্বত্র আনন্দ-উৎসবেই শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপন করা হচ্ছে।

এসব মণ্ডপে নির্বিঘ্নে উৎসব উদযাপনের জন্য প্রশাসনের পাশাপাশি প্রতিটি পূজা উদযাপন কমিটিও নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে। মণ্ডপে মণ্ডপে লাগানো হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা।

এছাড়া আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সূত্রে জানা যায়, এ বছরের শারদীয় দুর্গোৎসব যেন শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপিত হয় সেজন্য কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে রাজধানীসহ সারাদেশে। ভগবন্তপুর সার্বজনীন দূর্গা মন্দিরের সভাপতি পাপ্পুভক্তের সাথে কথা বললে তিনি ভোরের আলোকে জানান শুরু থেকে এখন পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ ভাবে সকল কাজ সুন্দর ভাবে করতে পেরেছি। কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে নি।আইন শৃঙ্খলার কাজে নিয়জিত প্রশাসনের ভায়েরা আমাদের সার্বক্ষনিক খোঁজ খবর নেয়। সবকিছু মিলিয়ে আমরা খুব আনন্দিত। 



মণ্ডপ দূর্গা শারদীয়

মন্তব্য করুন-

বাংলাদেশর সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি, উপজেলা প্রতিনিধি, বিশেষ প্রতিনিধি ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি পদে জরুরী ভিত্তিতে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ নিন্মোক্ত ঠিকানায় যোগাযোগ করুন।

নাম: আহসান হাবিব সোহেল
মোবাইল: ০১৭১২২৩১৩৯০
ইমেইল: doinikvoreraloi@gmail.com