এখানে আপনার পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন দিন।

ঢাকা ২৩ জুন ২০২৪ রবিবার

ব্রেকিং

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি: বাংলাদেশর সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি, উপজেলা প্রতিনিধি, বিশেষ প্রতিনিধি ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি পদে জরুরী ভিত্তিতে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ নিউজ সাইটের যোগাযোগ অংশে প্রদত্ত ঠিকানায় (ফোন, ইমেইল) যোগাযোগ করুন।

মোঃমাসুদ আলম, স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ২৪ জুলাই ২০২২, ১৪:৩৫

আপডেট: ২৪ জুলাই ২০২২, ১৪:৩৫

১৩০৩

শেয়ার:

গোদাগাড়ীতে রহমতের বৃষ্টির আশায় আল্লাহর দরবারে বিশেষ দোয়া মোনাজাত

দেশব্যাপী চলমান দাবদাহে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। প্রচণ্ড খরতাপে পুড়ছে জনজীবন। মানুষের মাঝে নেমে আসছে চরম দুর্ভোগ, রোদ আর গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে এখানকার সাধারণ মানুষ।গ্রামীণ জনপদের পুকুর ও ডোবায় পানির স্তর নেমে যাওয়ায় দেখা দিয়েছে মারাত্মক পানি সংকট। আষাঢ় পেরিয়ে শ্রাবণে পা দিলেও নেই বৃষ্টির দেখা। তাই মানুষ হাহাকার করছে পানির জন্য।

News

বৃষ্টি না হওয়ার কারণে নষ্ট হচ্ছে খেতের ফসল, দেখা দিয়েছে পানির তীব্র সংকট। তাই এ অনাবৃষ্টি গ্রীষ্মের প্রচণ্ড খরা থেকে রক্ষা পেতে ও রহমতের বৃষ্টির আশায় জনকল্যাণ সামাজিক পরিষদের উদ্যোগে রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার লালবাগ হেলিপ্যাড মাঠে ইসতিসকার নামাজ আদায় করেছেন এলাকাবাসী। রোববার সকাল ৮টায় গোদাগাড়ী হেলিপ্যাড মাঠে ইসতিসকার সালাত অনুষ্ঠিত হয়। নামাজের পূর্বে কুরআন ও হাদিস থেকে আলোচনা হয়। আলোচনা পেশ করেন কুঠি মসজিদের ইমাম মাওঃ মনিরুল ইসলাম, শাহ সুলতান রহঃ কামিল মাদ্রাসার সহকারী অধ্যাপক ও মহিশালবাড়ী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা, মোঃ দুরুল হোদা ও শায়েখ মোঃ আবুল কাশেম। শায়েখরা বলেন বিশেষ করে যখনই অনাবৃষ্টি প্রচণ্ড তাপপ্রবাহ বেড়ে যায় তখনই নামাজে ইসতিসকা আদায় করা হয়। ইসতিসকার সালাত আদায় করা নফল ইবাদত। তবে মহামারি বা দুর্যোগ এলে এই সালাতের গুরুত্ব অনেক।আমাদের সকলকে মহান আল্লাহর কাছে  তাওবা ইস্তেগফার করতে হবে। আল্লাহর কাছে চাইতে হবে।ইনশাআল্লাহ আল্লাহ তায়ালা অবশ্যই বৃষ্টি দিবে।


এ নামাজ ও বিশেষ দোয়া মোনাজাতে অংশ নেয় উপজেলার বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, খতিবসহ শত শত ধর্মপ্রাণ মানুষ। নামাজে ইমামতি ও দোয়া মোনাজাত করেন কুমোরপুর আলিম মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল শায়েখ আবুল কাশেম, নামাজ শেষে শত শত  মুসল্লিকে সাথে নিয়ে  আল্লাহর কাছে বৃষ্টির জন্য বিশেষ প্রার্থনা করে কান্নাকাটি করেন। অনাবৃষ্টি থেকে মুক্তির জন্য মহান আল্লাহর রহমত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

একনিষ্ঠ তাওবা করা অর্থাৎ তাওবাতুন নসুহার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে রহমতের বৃষ্টি কামনা করে অতিরিক্ত ১২ তাকবিরের মাধ্যমে ২ রাকায়াত সুন্নত নামাজ আদায় করার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে বৃষ্টি প্রার্থনা করা হয়েছে। এই নামাজে কোনো আজান বা ইকামত নেই। তবে জামায়াতের সঙ্গে আদায় করতে হয়। 

এ বিষয়ে শায়েখ আবুল কাশেম  বলেন, বৃষ্টি না হওয়ায় তাপপ্রবাহে দেশের মানুষের বিপদ-আপদ ও দুঃখ-কষ্ট হতে থাকলে প্রয়োজন পূরণের জন্য আল্লাহর দরবারে প্রার্থনা করা সুন্নত। একেই আরবিতে বলা হয় ‘ইসতিসকা’ অর্থাৎ পানি প্রার্থনা করা।

হাদিস শরিফে বর্ণিত আছে- রাসুলুল্লাহ (সা.) বৃষ্টি প্রার্থনার সময় বলতেন, ‘হে আল্লাহ! তুমি তোমার বান্দাকে এবং তোমার পশুদের পানি দান করো। আর তাদের প্রতি তোমার রহমত বর্ষণ করো এবং তোমার মৃত জমিনকে জীবিত করো '। এছাড়াও ইমাম সাহেব বলেন এখানে পরস্পর দুই দিন নামাজ ও বিশেষ দোয়া মোনাজাত হবে।আপনারা সবাই  উপস্থিত হবেন।


দোয়া মোনাজাত

মন্তব্য করুন-

বাংলাদেশর সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি, উপজেলা প্রতিনিধি, বিশেষ প্রতিনিধি ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি পদে জরুরী ভিত্তিতে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ নিন্মোক্ত ঠিকানায় যোগাযোগ করুন।

নাম: আহসান হাবিব সোহেল
মোবাইল: ০১৭১২২৩১৩৯০
ইমেইল: doinikvoreraloi@gmail.com