এখানে আপনার পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন দিন।

ঢাকা ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ শুক্রবার

ব্রেকিং

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি: বাংলাদেশর সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি, উপজেলা প্রতিনিধি, বিশেষ প্রতিনিধি ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি পদে জরুরী ভিত্তিতে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ নিউজ সাইটের যোগাযোগ অংশে প্রদত্ত ঠিকানায় (ফোন, ইমেইল) যোগাযোগ করুন।

খোকসা প্রতিনিধিঃ

প্রকাশিত: ২৪ মে ২০২১, ১০:৫২

আপডেট: ২৪ মে ২০২১, ১০:৫২

৭৫০

শেয়ার:

খোকসায় যেন বাল্যবিবাহ বেড়েই চলেছে

কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার একতারপুর ইউনিয়নের ইশ্বরদী গ্রামের সমীর সরকার(৫০)এর ছেলে সাহিত্য সরকার (১৮) ও একই গ্রামের ফাল্গুনী সরকার (৪৮) এর মেয়ে নবম শ্রেনীর ছাত্রী আনিকার (১৫)( মেয়েটির অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় ছদ্ম নাম ব্যবহার করা হল ) মধ্যে হৃদয়ঘটিত সম্পর্ক ছিল। তারই ধারাবাহিকতাই গত শুক্রবার সাহিত্য সরকার (১৮) মেয়েটিকে ফুসলিয়ে বাড়ি থেকে বের করে নিয়ে যায় ব

News

প্রাথমিক ভাবে জনা যায়, সাহিত্য সরকার (১৮) ফরিদপুর সরকারী পলিটেকনিক্যাল কম্পিউটার বিভাগ  ২য় সেমিস্টারের ছাত্র আর মেয়েটি ইশ্বরদী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্রী। তারা দুজনেই অপ্রাপ্ত বয়স্ক ।  

এ ঘটনায় মেয়েটির মা বলেন, সাহিত্যের সাথে ও গেছে, শুনেছি ওদের নাকি বিয়ে হয়েছে। এখন কোথায় আছে জানতে চাইলে মেয়েটির মা বলেন, সাহিত্যের দাদুর বাড়ি খাগড়বাড়িয়া আছেন বলে শুনেছি।

তবে এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না বলে জানান সাহিত্যের মা, তিনি বলেন, আমার ছেলে ফরিদপুর পড়তে গেছে, কাউকে নিয়ে যাওয়ার কথা আমি জানিনা এবং এখন কোথায় আছে তাও জানিনা।

তবে সাহিত্য ও তার সাথে থাকা মেয়ে’টি সাহিত্যের দাদু বাড়িতে আছেন এমন তথ্যের ভিত্তিতে একতারপুর ইউনিয়নের খাগড়বাড়িয়া (পুরোনপাড়া)অনুকুল বিশ্বাস এর বাড়িতে গেলে, সেখানে কথা হয়,তার ভাই মোহন মাষ্টারের সংঙ্গে, এ বিষয়ে মোহন মাষ্টার (৫০) বলেন, সাহিত্যে আমার ভাতিজীর ছেলে শুনেছি একটা মেয়ে কে নিয়ে চলে গেছে কিন্ত কোথায় গেছে জানিনা, এখন কোথায় আছে তাও জানিানা। তবে তার এই অস্বীকার বেশিক্ষন স্থায়ী হয়নি, এক সময় স্বীকার করে বলেন, ওরা আমার হেফাজতে আছে, ওরা মন্দিরে গিয়ে বিয়ে করেছেন শুনেছি, ওদের মধ্যে অনেক দিনের সম্পর্ক ছিলো,এটা বেআইনি কিন্তু আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি ওদের কে আবার সামাজিক ভাবে বিয়ে দেব।

তবে আইনের তোয়াক্কা না করে তার এই সিদ্ধান্ত কতটা যৌতিক, এমন প্রশ্নের জবাবে, তিনি বলেন, ১৫-১৬ বছর বয়সে জন্মনিবন্ধন বানায়ে আমার ছাত্রীগুলা অর্ধেক নাই বিবাহ হয়ে গেছে, সিক্সের ছাত্রী সেভেনের ছাত্রী, এগুলো তো হচ্ছেই আর এই সব ব্যাপারে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদেরও সম্মতি থাকে।

তবে এসব বাল্য বিবাহতে যে এক শ্রেনীর মানুষ সব সময়ই অতি উৎসাহী তার বাস্তব চিত্র ফুটে ওঠে বনগ্রাম মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক মোহন মাষ্টারের(৫০) কথাতেই । যারা কিনা বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে সন্মুখ ভূমিকা পালন করবে তারায় কিনা এগুলোকে উৎসাহিত করে, সরকারের বাল্যবিবাহ বন্ধ প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্থ করছে। আবার তাদের কথার মাঝে থাকে অনেক আঁকার ইঙ্গিত। নিজের দায় এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা।

তবে মেয়েটির বাবাও এ ব্যাপারে মুখ খুলতে রাজি হয়নি, এবং তাদের বিয়ের আয়োজন চলছে এমন বিষয়ও তিনি জানেন না বলে দাবী করেন, তবে তিনি এটাও বলেন, আপনারাতো সব জেনে শুনেই আসছেন আমি আর কি বলব, তবে এর মধ্যেই তার কাছে ফোন আসে, সাংবাদিকদের সাথে এ বিষয়ে কথা না বলার জন্য। বুঝতে বাকি রইল না, পরিস্থিতির কারনেই সে এ বিষয়ে কোন কথা বলতে চাইছেন না।

তবে বাল্য বিবাহ এবং অপ্রাপ্ত বয়স্ক কিশোর কিশোরী পালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে, খোকসা থানা অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, এমন ঘটনা জানা নাই এবং এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাৎক্ষনিক ঐ এলাকার বিট পুলিশ অফিসারকে ভিকটিমের অভিভাবকদের থানায় হাজির করার নির্দেশ দেন।


বাল্যবিবাহ

মন্তব্য করুন-


  • SS
    ২৪-০৫-২০২১ ১৩:১০ তরুণ

    বাল্যবিবাহকে না বলি বাল্যবিবাহ বন্ধ করি


বাংলাদেশর সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি, উপজেলা প্রতিনিধি, বিশেষ প্রতিনিধি ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি পদে জরুরী ভিত্তিতে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ নিন্মোক্ত ঠিকানায় যোগাযোগ করুন।

নাম: আহসান হাবিব সোহেল
মোবাইল: ০১৭১২২৩১৩৯০
ইমেইল: doinikvoreraloi@gmail.com