এখানে আপনার পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন দিন।

ঢাকা ২৪ অক্টোবর ২০২১ রবিবার

ব্রেকিং

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি: বাংলাদেশর সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি, উপজেলা প্রতিনিধি, বিশেষ প্রতিনিধি ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি পদে জরুরী ভিত্তিতে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ নিউজ সাইটের যোগাযোগ অংশে প্রদত্ত ঠিকানায় (ফোন, ইমেইল) যোগাযোগ করুন।

মোঃমাসুদ আলম রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৩

আপডেট: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৩

৮৭

শেয়ার:

রাজশাহীর পদ্মাপাড় জমে উঠেছে বিনোদন প্রেমীদের আড্ডায়

কথায় আছে সাগরের পাড়ে দাড়ালে সমুদ্রের বিশালতায় নিজেকে খুব ক্ষুদ্র মনে হয়। সাগরের নয়নাভিরাম সৌন্দর্য আর বিশালতা উপভোগ করতে সাগরপাড়ে যাওয়া সম্ভব না হলেও ঘুরে আসা যায় রাজশাহীর পদ্মাপাড়ে।

News

বরেন্দ্রভূমির গলার হার হয়ে যুগে যুগে শোভা বর্ধন করছে পদ্মা নদী ।নদীর তীর ঘেঁষে গোড়ে তোলা হয়েছে হাঁটার জন্য  টাইলস বসানো সুদীর্ঘ রাস্তা। বসার জন্য আছে সুন্দর সুন্দর টেন্ট।তপ্ত দুপুরকে উপেক্ষা করে নানা বয়সী মানুষের আগমন ঘটে চিরচেনা এই পদ্মাপাড়ে। এখানে স্কুল কলেজ পড়ুয়া কিশোর-কিশোরী  তরুণ -তরুণীদের সংখ্যায় বেশি। কি সকাল আর কি বিকাল, সময়টা তেমন মূল বিবেচ্য বিষয় নয়।একটু খানি ফাঁক পেলেই মন ছুটে চলে পদ্মাপাড়ে। সকালের চাইতে বিকেল সময়ে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা যায়। বিনোদন প্রেমীরা ছুটে আসে পদ্মাপাড়ে স্নিগ্ধতার কোমল ছোঁয়া পেতে।এখানে  কেউ আসে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে, কেউ  বন্ধুদের সাথে,আবার  কেউ আসে প্রিয়জনকে নিয়ে মনোরম পরিবেশে পদ্মার হিমেল হাওয়া, কাশফুলের নরম ছোঁয়ায় হারিয়ে যেতে। নদীর মোহনায় যে পরিবেশ দেখা যায় তা অতুলনীয়। যেভাবে ক্ষণে ক্ষণে বদলে যেতে থাকে দৃশ্যপট তাতে উদ্ভাসিত হয়ে উঠে সৌন্দর্যের অপরুপ ছটা।প্রকৃতি যে কতবড় চিত্রকর, সেটা পলে পলে অনুভব করতে থাকে। তার তুলির আঁচড়ে  খোলতাই হতে থাকে জগতের রুপমাধরী।চলতে থাকে আলো ছায়ার খেলা। দিনের বেলায়ও পদ্মা নদীর তীরে রৌদ্রউজ্জ্বল, সকালের মাধুর্য জৌলুস বেশ উপভোগ্য। যদিও কার্তিকে গাঁ বুলিয়ে দেওয়ার কথা মিঠে রোদের আমেজে অথচ রোদ্রের তীব্রতার কারনে নাস্তানাবুদ হতে হয়।তারপরও নদীর পাড় ঘেঁষে কাশফুলের নান্দনিক সমাহার মনের মধ্যে এনে দেয় শুভ্র পালকের ছোঁয়া। পদ্মাপাড়ের তীরে গড়ে উঠা সীমান্ত অবকাশ, সীমান্ত নোঙর নামের  ক্যাফে ও রেস্তোরাঁ আছে।সেখান বসে অনেকে চা,কফি,ফাষ্ট ফুডে বিভিন্ন ধরনের খাবারের অর্ডার দিয়ে মেতে গল্পের আড্ডায়। গল্পে এতটাই মগ্ন হয়ে  উঠে যে নীড়ে ফেরার কথা ভুলে যায়। সুশোভিত পার্কে গাছের নিচে রয়েছে চমৎকার বসার ব্যবস্হা।সন্ধ্যা ঘনিয়ে এলে  দিনের আলো শেষ হতেই অন্ধকারে ফুটে ওঠে আলোর বর্ণময় ফুটকি । দূর থেকে মনে হয় যেন দিপালী উৎসব। নদীর পানিতে তার প্রতিচ্ছবি।কাঁপা কাঁপা রঙিন বিচ্ছুরণ। বইতে থাকে ঝরিঝিরি সুমিষ্ট হিমেল হাওয়া।অপরুপ সেই নৈসর্গিক দৃশ্য। কাঁধে কাঁধ ঠেকিয়ে নিভৃতে থাকেন কেউ কেউ।  


নগরীর আলুপট্টি থেকে হাইটেকপার্ক সংলগ্ন নবগঙ্গা পর্যন্ত শরতের কাশফুল সৌন্দর্য ছড়ায়। মাথার ওপরে নীল আকাশে ভাসে পেঁজাতুলোর মত মেঘদল, জমিনে নদী-জল আর কাশবনের মনোমুগ্ধকর মাখামাখি।

আজ পদ্মা গাডের্নসহ নদীর ধারের কিছু এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, বিনোদন প্রেমীদের উপচে পড়া ভীড়। প্রিয় মানুষদের সাথে পদ্মা পাড় ঘুরতে এসেছেন ছুটির দিন অনেকেই। নৌকায় ঘোরার পাশাপাশি কাশফুলের সাথে নিজেদের ঘনিষ্ট মুহূর্তকে করেছেন ক্যামেরাবন্দি। কেউ বন্ধুদের নিয়ে কেউ বা পরিবারের সদস্যদের নিয়ে। নৌকায় চড়ে চর গুলোতে নেমে কাশফুলের সাথে নিজেকে হারানোর ব্যর্থ চেষ্টাও লক্ষ্য করা গেছে।

মোঃসাইদুল হাসান জানান পদ্মায় এখন সুন্দর নীল আকাশ, নদী ভরা পানি তার মাঝে কাশফুল দেখে সত্যি খুব ভালো লাগছে। নদীর পাড়ে ঘুরতে এসেছি পরিবার নিয়ে। কর্মব্যস্ত জীবনে পরিবার নিয়ে মাঝে মাঝে আসি পদ্মায়। এখনের পরিবেশ অনেক ভাল।নদীর তীরে সুমিষ্ট হিমেল হাওয়া মনকে সতেজ করে দেয়।আজ অনেকদিন পর পরিবারের সবাইকে নিয়ে ঘুরতে বের হয়েছি।আকাশ মেঘলা তেমন রৌদ্র নেয় আবার বৃষ্টি নেয় সবমিলিয়ে পরিবেশটা অসাধারণ।

শিক্ষার্থী তানভীর  এসেছেন বন্ধুদের সাথে ঘুরতে। তিনি জানান, অনেকদিন পর বন্ধুদের সাথে কিছু সময় আড্ডা হলো। সবাই মিলে নৌকায় ঘুরলাম। আর কাশফুলগুলো দেখতে একদম সাদা তুলোর মতো। অনেক ছবিও তুললাম। কারো মন খারাপ থাকলে এই পরিবেশে আসলে সত্যি মন ভালো হয়ে যাবে।


বিনোদন

মন্তব্য করুন-

বাংলাদেশর সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি, উপজেলা প্রতিনিধি, বিশেষ প্রতিনিধি ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি পদে জরুরী ভিত্তিতে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ নিন্মোক্ত ঠিকানায় যোগাযোগ করুন।

নাম: আহসান হাবিব সোহেল
মোবাইল: ০১৭১২২৩১৩৯০
ইমেইল: doinikvoreraloi@gmail.com